বিমানবন্দরের চেক-ইন কাউন্টারে শিশুকে ভুলে রেখে গেলেন এক দম্পতি

একজন দম্পতি বেলজিয়ান পাসপোর্টে ব্রাসেলসে ভ্রমণ করার সময় তাদের ছোট্ট বাচ্চাটির জন্য আগাম টিকিট কিনতে ভুলে গিয়েছিলেন এবং তাদের ছোটটি শিশুটিকে চেক-ইন কাউন্টারে রেখে বিদেশের একটি বিমানে চড়ার চেষ্টা করছিলেন ।

ঘটনাটি ঘটেছে টেল আবিব বেন-গুরিয়ন বিমানবন্দরে রায়নায়ার এয়ার ডেস্কে। বিমানবন্দরের কর্মীদের কাছ থেকে জানা যায় ওই দম্পতি তাদের সন্তানকে বেবি স্ট্রলারে ডেস্কের কাছে রেখে পাসপোর্ট কন্ট্রোলের দিকে এগিয়ে যান।

বিমানবন্দরের কর্মীরা সেই সময় দম্পতিকে বাধা দেয় এবং তাদের শিশুটির কাছে ফিরে যেতে এবং শিশুটিকে নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়। একইসঙ্গে পুলিশ ও এয়ারপোর্ট সিকিউরিটিকে বিষয়টি সম্পর্কে সতর্ক করে দেওয়া হয় ।

এয়ারলাইনটি সিএনএনকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছে, “এই যাত্রীরা তেল আবিব থেকে ব্রাসেলস (৩১ জানুয়ারী) যাওয়ার সময় তাদের শিশুর বুকিং ছাড়াই চেক-ইন করার সময় উপস্থিত হয়েছিলেন। তারপরে তারা চেক-ইন করার সময় শিশুটিকে পিছনে রেখে নিরাপত্তার দিকে এগিয়ে যায়। বেন গুরিওন বিমানবন্দরের চেক-ইন এজেন্ট বিমানবন্দর নিরাপত্তার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল, যারা এই যাত্রীদের ফিরিয়ে আনে এবং এই বিষয়টি এখন স্থানীয় পুলিশের অধীনে ।”

চ্যানেল 12 থেকে জানা গেছে যে পুলিশ ওই দম্পতি এবং শিশুটিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে গেছে। ঘটনাটি এতটাই আশ্চর্যজনক ছিল যে বিমানবন্দরে সকলকে অবাক করে দিয়েছিল। বিমানবন্দরের রায়ানএয়ারের কর্মীরা জানিয়েছেন “সকল কর্মীরা হতবাক। আমরা এরকম ঘটনা কখনও দেখিনি। আমরা যা দেখছিলাম তা আমরা বিশ্বাস করতে পারিনি । ”

একটা শিশুর সঙ্গে তার মা বাবার সম্পর্ক সবচেয়ে বেশি ঘনিষ্ট , সবচেয়ে বেশি দৃঢ়। যে কোন পরিস্থিতিতে একটা মা তার সন্তানকে রাখা করে। কিন্তু এমন একটি ঘটনা মানুষকে অবাক করে দিয়েছে। মানুষ জিনিস ভুলে যেতে পারে কিন্তু নিজের সন্তানকে কিভাবে ভুলতে পারে সেটা এই ঘটনাটির ক্ষেত্রে একটা বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সূএ: নিউজ১৮

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.