মুন্সিগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্তে নেমেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ।

গতকাল বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা শাখা বিভাগের উপসচিব মুহাম্মদ শহিদ উল্লাহ স্বাক্ষরিত স্মারক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। আনীত অভিযোগ তদন্ত করে আগামী ১০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য বলা হয়েছে।

জানা যায়, গেলো ৫ ফেব্রুয়ারি মুন্সিগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে হয়রানি ও হেনস্তার দাবি করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগে লিখিত অভিযোগ দেন সেবাপ্রার্থী ও ভুক্তভোগী মো. আসাদুজ্জামান।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে নিজের পাসপোর্ট নবায়ন করতে গত ২৪ জানুয়ারি পাসপোর্ট অফিসে যান মুন্সিগঞ্জ শহরের চরশিলমন্দি এলাকার মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে মো. আসাদুজ্জামান (সুমন)।

সে সময় পাসপোর্ট অফিসে দায়িত্বরত কয়েকজন নিরাপত্তাকর্মী, কর্মচারি ও সহকারি পরিচালক তার প্রাপ্য সেবা নিশ্চিত না করে এবং কোন সহযোগিতা না করে উল্টো তাকে হেনস্তা ও হয়রানি করে।

এছাড়াও ‘নির্ধারিত দালালের মাধ্যম ব্যতীত পাসপোর্ট করতে গেলে হয়রানির শিকার হয় সাধারণ সেবাপ্রার্থীরা এবং কেউ প্রতিবাদ করলে স্থানীয় মাস্তান ডেকে তাকে শায়েস্তা করা হয় বলেও অভিযোগে উল্লেখ করেন মো. আসাদুজ্জামান।

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস মুন্সিগঞ্জের সহকারি পরিচালক উম্মে শাকিলা তানিয়ার সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

পাসপোর্ট অফিসের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী মো. আসাদুজ্জামান বলেন, মুন্সিগঞ্জ জেলার সাধারণ জনসাধারণের পক্ষ থেকে পাসপোর্ট অফিসের সকল সেবা সহজে প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগে অভিযোগ করেছি। তারা একটি তদন্ত কমিটি করেছে। এর আগে বিষয়টি জেলা প্রশাসককেও লিখিতভাবে জানানো হয়েছিলো। আমি, পাসপোর্ট অফিসের সকল ভোগান্তির অবসান চাই। সাধারণ মানুষ যাতে কোনো দুর্ভোগে না পড়ে সেটি নিশ্চিত করতে হবে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.