বাগদাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসে তিনটি রকেট হামলা

গতকাল রোববার ইরাকের রাজধানী বাগদাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসে কমপক্ষে তিনটি রকেট হামলা হয়েছে। আজ সোমবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়।

একটি রকেট মার্কিন দূতাবাসের ক্যাফেটেরিয়ায় আঘাত হানে। অন্য দুটি রকেট কাছেই পড়ে। একটি সূত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে এই তথ্য জানায়। এই রকেট হামলায় অন্তত তিন ব্যক্তি আহত হয়েছেন। রকেট হামলার দায় এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী স্বীকার করেনি। তবে অতীতে এই ধরনের হামলার জন্য ইরান-সমর্থিত ইরাকি মিলিশিয়াদের দায়ী করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে রকেট হামলার নিন্দা জানিয়েছেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদেল মাহদি। তিনি বলেছেন, এই ধরনের কর্মকাণ্ড ইরাককে একটি রণক্ষেত্রে পরিণত করতে পারে। গত কয়েক বছরের মধ্যে এমন রকেট হামলায় এই প্রথম মার্কিন দূতাবাসের কর্মী আহত হলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর বলেছে, মার্কিন কূটনৈতিক স্থাপনা সুরক্ষার বাধ্যবাধকতা পরিপালন করতে তারা ইরাক সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

সম্প্রতি বাগদাদে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস ও মার্কিন সেনাদের ব্যবহৃত ইরাকি সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে একাধিক হামলা হয়।

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ বিমানবন্দরে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানের শীর্ষ জেনারেল কাশেম সোলাইমানি নিহত হন। একই হামলায় ইরানের সমর্থনপুষ্ট ইরাকি মিলিশিয়া নেতা আবু মাহদি আল-মুহানদিসও নিহত হন।

কাশেম সোলাইমানি হত্যার জেরে ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের চরম উত্তেজনা দেখা দেয়। ইরাকেও মার্কিনবিরোধী ক্ষোভ বাড়ে।

৮ জানুয়ারি ইরাকে মার্কিন সেনাদের ব্যবহৃত দুটি ঘাঁটিতে ইরান ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় চালিয়ে সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ নেয়। পরে বাগদাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাস লক্ষ্য করে একাধিক রকেট হামলা হয়। মার্কিন দূতাবাসে হামলার দায় ইরান অস্বীকার করে আসছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.